jagannathpurtoday-latest news

,

সংবাদ শিরোনাম :


মন্ত্রী ইমরানের প্রচেষ্টায় সৌদিতে নিহত গোয়াইনঘাটের শাহীনের পরিবার পেলো ২৫ লাখ টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক :: প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ এর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় ২৫ লাখ টাকা পেলো সৌদি আরবে লিফট দুর্ঘটনায় নিহত প্রবাসী বাংলাদেশি শ্রমিক শাহীনের পরিবার। রোববার (২০ জুন) গোয়াইনঘাট উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ এমপি নিহত শাহীনের সহধর্মিণী লাকী বেগমের হাতে ২৫ লাখ টাকার চেক তুলে দেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন- সিলেটের জেলা প্রশাসক এম. কাজী এমদাদুল ইসলাম, গোয়াইনঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ ইব্রাহিম, গোয়াইনঘাট সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মো. ফজলুল হক, নিহত শাহীনের বাবা আশরাফ খাঁন প্রমুখ। গোয়াইনঘাটের উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাহমিলুর রহমানের সভাপতিত্বে ও সঞ্চালনায় চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ এমপি বলেন, প্রবাসী কর্মীরা মারা গেলে তার মরদেহ দেশে আনার জন্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয় সরকার। বিমানবন্দরে লাশ হস্তান্তরের সময় পরিবহন ও দাফনের খরচ হিসেবে দেওয়া হয় সরকারি অনুদান। এছাড়া মৃত প্রবাসী কর্মীর পরিবারের জন্য আর্থিক অনুদান আর মৃত্যুজনিত ক্ষতিপূরণ আদায়ের ব্যবস্থাও করে থাকে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়। প্রসঙ্গত, সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার পূর্ব জাফলংয়ের ৬ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি ও নবম খন্ড গ্রামের আশরাফ খাঁনের ছেলে মো. শাহীন খাঁন (পনির) প্রায় তিন বছর আগে সৌদি আরবে যান। সেখানে তিনি একটি কোম্পানিতে কর্মরত ছিলেন। গত ২৫ ফেব্রুয়ারি সৌদি আরবের দাম্মাম শহরের শাহীন ও তার সহকর্মীরা নির্মাণাধীন একটি বহুতল ভবনের পানির লাইনে কাজ করছিলেন। কাজ করার সময় ভবনটিতে মালামাল উঠানোর কাজে ব্যবহৃত একটি অস্থায়ী লিফট ছিড়ে শাহীনের ওপর পড়ে যায়। এতে তিনি গুরুতর আহত হলে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে আল জুবাইল সেন্ট্রাল হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওইদিন রাতেই তার মৃত্যু হয়।

 

নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে বিষয়টি প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদকে জানানোর পর তিনি উদ্যোগ নিয়ে শাহীনের কর্মরত প্রতিষ্ঠান থেকে ২২ লাখ টাকা এবং প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রনালয় থেকে আরও ৩ লাখ টাকার ব্যবস্থা করেন। চেক হাতে পেয়ে নিহতের পরিবারের সদস্যরা আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। এসময় তারা প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদ’র প্রতি তাদের পরিবারের পক্ষ থেকে অশেষ কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।