jagannathpurtoday-latest news

,

সংবাদ শিরোনাম :


ছাতকে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধসহ আহত ২০, অস্ত্র উদ্ধারে এলাকাবাসীর দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সুনামগঞ্জের ছাতকে দু-পক্ষের সংঘর্ষে ২০জন আহত হয়েছেন। আশঙ্কাজনক গুলিবিদ্ধসহ আহতদেরকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভতি করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে আজ রোববার (৪ জুলাই) উপজেলার ভাতগাঁও ইউনিয়নের ঝিগলী গ্রামে। এসময় পুলিশের উপস্থিতিতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে ১৪ জন গুলিবিদ্ধ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। অবৈধ বন্দুক দিয়ে গুলি চালায় একাধিক অস্ত্র মামলার আসামি, রুমেন, নজির আহমদ এবং সাবাজ মেম্বার, আবুল হাসনাত, শফিক গং। এলাকাবাসীর প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়,  মাশুক মেম্বার ও জিয়াউরা রহমানের গোত্রের নূরুল আমিনের উপর আজ সকাল ৯টার দিকে হঠাত করে হামলা চালায় ছিদ্দিকুর রহমান ও তার ভাই রাকিব এই ঘটনার জের ধরেই মাশুক মেম্বারের আত্মীয় স্বজন রাস্তায় বেরিয়ে এলে তাৎক্ষনিক কিছু বোঝে উটার পূর্বেই উপরোল্লিখিত লোকজন ও তাদের সহযোগীরা অবৈধ বন্দুক দিয়ে পূর্বের ন্যায় মুহুর্তে গুলি চালায় এতে জাহিদপুর পুলিশ ফাঁড়ি থেকে আসা এএসআই পলাশসহ তার সহযোগীরা উভয় পক্ষ কে মারামারি থেকে বিরত থাকার অনুরোধ করা অবস্থায় সাবাজ মেম্বারের পক্ষ থেকে প্রায় পঞ্চাশ রাউন্ড গুলি চালায় এতে মাশুক মেম্বারের পক্ষে মুহূর্তেই গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হন আব্দুর রহিম (৬০), তালেব মিয়া (৫২), তুহেল মিয় (৩৮), তাহের আহমদ (২২), ইমন আহমদ (১৯), আব্দুছ ছামাদ (২৬), নয়ন (২৩), মিলন (২০), সায়মন (২৬), আব্দুল্লাহ আল মাহবুুব (১৭), আজিজ (৪০), জামাল (৩৫), নুরুল আমীন (১৭)। আশঙ্কাজনক গুলিবিদ্ধসহ গুরুতর আহতদেরকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভতি করা হয়েছে। সচেতন এলাকাবাসীর দাবি, বার বার অবৈধ বন্দুক দিয়ে ত্রাসের সৃষ্টি করা এই বন্দুক গুলো উদ্ধার করতে স্থানীয় প্রশাসনের কাছে জোর দাবি জানান। এবং এসব অবৈধ অস্ত্রগুলো উদ্ধার করে এলাকায় আবার শান্তি ফিরিয়ে আনার উদ্যােগে গ্রহণ করার জন্য প্রশাসনসহ জনপ্রতিনিধিদেরকে এগিয়ে আসার আহবান জানান স্থানীয়রা।