jagannathpurtoday-latest news

,

সংবাদ শিরোনাম :
«» সিলেটে মধ্যরাতে শাবি উপাচার্যের বাসভবন ঘেরাও «» সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ: জকিগঞ্জে কেন্দ্রে গিয়ে সিল মারা ব্যালট বাক্সে ভরেন নির্বাচন কর্মকর্তা «» গোয়াইনঘাটে মদসহ এক যুবককে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব «» কচুরিপানা বিক্রি হবে ২৫ টাকা কেজি! «» বিশ্বনাথ প্রেসক্লাবের বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত «» জগন্নাথপুরে ইউপি নির্বাচনে নৌকা ৩, বিদ্রোহী ৩, বিএনপির ১ জন চেয়ারম্যান নির্বাচিত «» বিশ্বনাথে পুলিশি নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন «» জগন্নাথপুরে ৭টি ইউনিয়নে আজ নির্বাচন «» ওসমানীনগরে ছাত্রলীগ নেতার যুক্তরাজ্য যাত্রা উপলক্ষে সংবর্ধনা «» ছাতকে ১০টি ইউনিয়নের নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যানসহ ১৩০জন জনপ্রতিনিধির শপথ গ্রহন

সিলেটের ১৬ ইউপিতে ভোট পড়েছে ৭৫ দশমিক ১ শতাংশ

ডেস্ক রিপোর্ট :তৃতীয় ধাপে সিলেট জেলার ৩ উপজেলায় ১৬ ইউপিতে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে রোববার (২৮ নভেম্বর)। দিন শেষে ভোটের ফলাফলে ৯টিতে নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন। বাকি ৭টি ইউনিয়নের ৩টিতে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী, ২টিতে স্বতন্ত্রের ব্যানারে বিএনপি, অপর দু’টিতে জাতীয় পার্টি ও জাসদের প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন। রিটানিং কর্মকর্তার দফতরের প্রাপ্ত ফলাফলে দেখা যায়, ১৬টি ইউনিয়নে ভোটার সংখ্যা মোট ৩ লাখ ১০ হাজার ২৩২ জন। এরমধ্যে ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন ২ লাখ ৩২ হাজার ৭১১ জন। সর্বমোট প্রদত্ত ভোটের হিসাবে ৭৫ দশমিক ০১ শতাংশ ভোট পড়েছে। সিলেট জেলা নির্বাচন অফিসার শুক্কুর মাহমুদ মিয়ার দেওয়া তথ্যমতে, গোয়াইনঘাট উপজেলার রুস্তমপুরে ২৮ হাজার ৮৩১ ভোটের মধ্যে প্রদত্ত ভোট ২২ হাজার ৪৭০টি। এখানে ৭৭ দশমিক ৮০ শতাংশ ভোট পড়েছে। চেয়ারম্যান পদে এ ইউনিয়নে মো. শাহাব উদ্দিন (স্বতন্ত্র) ৮৫১১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। উপজেলার লেঙ্গুড়া ইউনিয়নে ১০ হাজার ৯২৬ ভোটের মধ্যে প্রদত্ত ভোট ৮ হাজার ৯৪৯টি। এখানে ৮১ দশমিক ৯১ শতাংশ ভোট পড়েছে। চেয়ারম্যান পদে এ ইউনিয়নে  আওয়ামী লীগের মুজিবুর রহমান (নৌকা) ২৫১০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। ফতেহপুর ইউনিয়নে ১৪ হাজার ৪৮৭ ভোটের মধ্যে ভোট পড়েছে মোট ১২ হাজার ৯টি। প্রদত্ত ভোটের হিসাবে ৮২ দশমিক ১০ শতাংশ ভোট পড়েছে। চেয়ারম্যান পদে এ ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী মিনহাজ উদ্দিন ৪ হাজার ১০০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। নন্দিরগাও ইউনিয়নে ১৬ হাজার ৯৮ ভোটের মধ্যে কাস্ট হয়েছে মোট ১২ হাজার ৮৭২টি। প্রদত্ত ভোটের হিসাবে ৮১ দশমিক ২৮ শতাংশ ভোট পড়েছে। চেয়ারম্যান পদে এ ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগের এসএম কামরুল হাসান আমিরুল ৩ হাজার ৯৯৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তোয়াকুল ইউনিয়নে ১৭ হাজার ৩৭৩ ভোটের মধ্যে মোট প্রদত্ত ভোট ১৩ হাজার ৫৭৫টি। সে হিসাবে ৭৮ দশমিক ১৪ শতাংশ ভোট পড়েছে। চেয়ারম্যান পদে এ ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগের লোকমান আহমদ ৪ হাজার ৯৭৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। ডৌবাড়ি ইউনিয়নে ১৫ হাজার ৩৫০ ভোটের মধ্যে মোট প্রদত্ত ভোট ১২ হাজার ২৯৪টি। প্রদত্ত ভোটের হিসাবে ৮০ দশমিক ৫৯ শতাংশ ভোট পড়েছে। চেয়ারম্যান পদে এ ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী নিজাম উদ্দিন ৪ হাজার ৪২৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। জৈন্তাপুর উপজেলার জৈন্তাপুর সদর ইউনিয়নে ১৯ হাজার ২৩১ ভোটের মধ্যে ১৪ হাজার ৭১৫ ভোট কাস্ট হয়। ভোটের হিসাবে ইউনিয়নে ৭৬ দশমিক ৫২ শতাংশ ভোট পড়েছে। এ ইউনিয়নে বিজয়ী হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী ফখরুল ইসলাম। তার প্রাপ্ত ভোট ৫৪৬৬টি। উপজেলার চারিকাটা ইউনিয়নে ১৪ হাজার ৮২২ ভোটের মধ্যে প্রদত্ত মোট ভোট ১১ হাজার ৩১২টি। প্রদত্ত ভোটের হিসাবে ৭৬ দশমিক ৩২ শতাংশ ভোট পড়েছে। চেয়ারম্যান পদে এ ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী সুলতান করীম ৪ হাজার ৫৮২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। দরবস্ত ইউনিয়নে ২৮ হাজার ২১৬ ভোটের মধ্যে প্রদত্ত মোট ২০ হাজার ৬১২ ভোট। প্রদত্ত ভোটের হিসাবে ৭৩ দশমিক ৭৬ শতাংশ ভোট পড়েছে। চেয়ারম্যান পদে এ ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী বাহারুল আলম বাহার ১০ হাজার ১১১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। জৈন্তার ফতেহপুর ইউনিয়নে ১৬ হাজার ১৬৯ ভোটের মধ্যে ভোট পড়েছে মোট ১৩ হাজার ২৬৭টি। প্রদত্ত ভোটের হিসাবে ৮২ দশমিক ০৫ শতাংশ ভোট পড়েছে। চেয়ারম্যান পদে এ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের রফিক আহমদ (নৌকা) ৭ হাজার ৬৯৪ ভোট পেয়ে বিজয় লাভ করেন। চিকনাগুল ইউনিয়নে ১৫ হাজার ৭১২ ভোটের মধ্যে ভোট পড়েছে মোট ১২ হাজার ৪৭৫টি। প্রদত্ত ভোটের হিসাবে ৭৯ দশমিক ৪৩ শতাংশ ভোট পড়েছে। চেয়ারম্যান পদে এ ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী কামরুজ্জামান চৌধুরী ২ হাজার ৭৩৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। দক্ষিণ সুরমার সিলাম ইউনিয়নে মোট ২২ হাজার ৮৯৮ ভোটের মধ্যে ১৫ হাজার ৯৮০ ভোট কাস্ট হয়েছে। ভোটের হিসাবে ৬৯ দশমিক ৭৯ শতাংশ ভোট কাস্ট হয়েছে। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের শাহ ওলিদুর রহমান (নৌকা) ৫ হাজার ৪৯৮ ভোট পেয়ে বিজয় পেয়েছেন। উপজেলার লালাবাজার ইউনিয়নে মোট ১৯ হাজার ৭১১ ভোটের মধ্যে মোট প্রদত্ত ভোট ১৩ হাজার ২৫০টি। ভোটের হিসাবে ৬৭ দশমিক ২২ শতাংশ ভোট পড়েছে। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের তোয়াজিদুল (নৌকা) ৪ হাজার ৩০০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন।
জালালপুর ইউনিয়নে মোট ২৬ হাজার ৫২ ভোটের মধ্যে ১৮ হাজার ৪৪০ ভোট পড়েছে। সে হিসাবে ৭০ দশমিক ৭৮ শতাংশ ভোট কাস্ট হয়েছে। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের ওয়েছ আহমদ (নৌকা) ৭ হাজার ৯৯১ ভোট পেয়ে বিজয় হয়েছেন।
দক্ষিণ সুরমার মোগলাবাজার ইউনিয়নে মোট ২৪ হাজার ৯৭২ ভোটের মধ্যে ১৬ হাজার ৬৬২ ভোট কাস্ট হয়েছে। ভোটের হিসাবে ৬৬ দশমিক ৭২ শতাংশ ভোট কাস্ট হয়েছে। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী ফখরুল ইসলাম শাইস্তা ৪ হাজার ৩৮৫ ভোট পেয়ে বিজয় পেয়েছেন।
এছাড়া উপজেলার দাউদপুর ইউনিয়নে মোট ১৯ হাজার ৩৩৪ ভোটের মধ্যে প্রদত্ত ভোটের সংখ্যা ১৩ হাজার ৪১৬টি। সে হিসাবে ৬৯ দশমিক ৩১ শতাংশ ভোট কাস্ট হয়েছে। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের আতিকুল হক (নৌকা) ৭ হাজার ৩০১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন।